নিজের স্ত্রীকে নিজের হাতে হত্যা 🥺 পর্ব ১ || 10% Beneficiaries @shy-fox


গল্পটি কাল্পনিক আমার নিজের লেখা।


আমি বাবা মায়ের একটি মাত্র ছেলে। সেই ক্লান ৯ম শ্রেনিতে যখন পড়ি, তখনকার সময়ের গল্প। আমার বাবা রিক্স চালায় মা বাসায় কাজ করে। আমি ক্লাসের একজন নিয়মিত ছাত্র। আমার ক্লাসে আমার রোল নং ১। আমি পি এস সি তে, GPA 5 পেয়েছি, JSC তে GPA 5 পেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ। আমি স্কুলের খেলাদুলাতেও সব সময় প্রথম। ক্রিকেট খেলায় আমি অল রাউন্ডার। কিন্তু আমার একটা দুর্বলতা কাজ করে, সেটা হচ্ছে আমি মেয়েদের সামনে দাড়িয়ে কথা বলতেও ভয় পাই। অনেক মেয়ে আমার সাথে প্রেম করতে চায়। কিন্তু আমি এগুলাতে খুব ভীতু আর ইচ্ছে শক্তি নেই বল্লেই চলে।


B8CAC1F0-BF7B-4D86-AE3C-CEAA5715C29C.jpeg


ছবিটা আমার ভিডিও থেকে স্ক্রিনশট নেয়া।


স্কুলে বিদায় অনুষ্ঠান এর আয়োজন শুরু। আমি লক্ষ করলাম একটা মেয়ে আমায় খুব ফলো করছে। আমি দেখেও না দেখার অভিনয় করছি। অনুষ্ঠান শেষ হতে হতে প্রায় সন্ধা শেষ রাত হয়ে গেল। আমি বাসায় যাওয়ার জন্য স্কুল থেকে বাহির হয়ে রিক্সা নিলাম। এবার যা ঘটে গেল আমি মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না🤦‍♀️ মেয়ে টা হুট করে আমার রিক্সায় উঠে গেল। আমি বল্লাম একি আপনি রিক্সায় উঠলেন ক্যান? মেয়েটা বল্লো আমার বাবা পুলিশ যদি তেরি বেরি করেন আমি বাবা বানিয়ে বানিয়ে বলে আপনার অবস্থা খারাপ করে দিবো। আমি ভয়ে শেষ কি হতে যাচ্ছে এগুলা🥺🥺🤓। এবার আমার হাত কাপছে আর ও খেয়াল করছে এগুলা।হুট করেই আমার হাত ধরে বলে ফেল্ল রাজ আমি তোমাকে অনেক ভালোবাসি❤️। আমি তো পুরা অবাক, আমি বল্লাম পাগল হয়েছেন কি বলছেন এসব। ও আমাকে বল্ল একদম চুপ গলা টিপে হত্যা করে ফেলবো এটা বলেই হেসে দিল। আমি রিক্স থেকে নেমে গেলাম আর বল্লাম আমার সামনে যাতে আপনাকে না দেখি বেয়াদম মে একটা। বলে আমি চলে গেলাম। রাতে আমার ঘুম আসছে না। সব কেমন জানি অন্য রকম লাগছি। সকালে আজ খুব ভালো লাগা নিয়ে স্কুলে গেলাম। ও স্কুলের সামনে দাড়িয়ে আছে। আমি যাওয়ার পরে আমাকে বল্ল জাস্ট একটা কথা বলার ছিল প্লিজ। না কোন কথা শুনতে চাই না। আপনাকে না বলেছি আমার সামনে না আসতে। প্লিজ একটা কথা বলবো শুনেন না। আচ্ছা কি বলবেন বলে ফেলুন। আমি আপনাকে আর বিরক্ত করবো না গত কাল এর বিষয়টির জন্য ক্ষমা করে দিবেন তবে আমি আপনাকে সত্যি ভালোবাসি। আর আমি আপনাকে গত 2 বছর যাবত ভালোবাসি🥺🥺🥺।
আমি কিছু না বলেই চলে আসলাম। প্রায় ১৫ দিন পরে ও আবার আমার সামনে , কিন্তু এই ১৫ আমি অরে অনেক খুজেছি। কোথাও পাই নাই। আজ অরে দেখে আমার খুব ভাল লাগছিল। ও এসে বলতেছে আপনায় পায়ে ধরি আমি আপনার সামনে আসবো কোন দিন কথা বলবো না। আপনি নিষেধ করাতে আমি আপনার সামনে আসি নাই। কিন্তু আমার খুব কষ্ট হয়। এটা বলার পরে আমি অরে একটা চর দিলাম ওর গালে। লজ্জা লাগে না একটা ছেলে এগুলা বলতে। ও চুপ কান্না করে দিল আর চলে গেল। আমার বন্ধু আমাকে এসে যা বল্ল আমি এগুলা নেয়ার জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলাম না। রাজ তুই এটা কি করলি তুই অরে থাপ্পর দিলি? তোর মনে আছে তোর মা যখন হাসপাতাল ছিল আমি তোকে ৫0 হাজার টাকা দিয়ে ছিলাম? আর বলে ছিলাম আমার এক বন্ধু দিয়েছে নাম বলে নাই। সে কে জানিস এই দিপা ছিল। ও অর জন্ম দিনে পাওয়া গলার চেইন বিক্রি করে টাকা দিয়েছে তোর মাকে দেয়ার জন্য এটা ওর ফ্যামিলিও জানে না। আর তোকেও বলতে নিষেধ করেছে তাই আমি বলি নাই। আর তুই অরে থাপ্পর দিলি ছি রাজ ছি কিসের এত অহংকার তোর? তুই ভালো ছাত্র এটাই তোর অহংকার?


5BEE502A-3705-488F-B95A-FBE3D7DDA990.jpeg


আমি আমার বন্ধুকে জড়িয়ে ধরে কান্না করে দিলাম। বন্ধু আমি এই ১৫ দিন পাগলের মতন খুজেছি 🥺🥺🥺🥺আমিও যে অরে ভালোবাসি। কিন্তু অর বাবা পুলিশ আমার বাবা রিক্স চালায় এটাই অরে চর দেয়ার কারন। ওর যোগ্য যে আমি না 🥺🥺🥺


আমি আর ক্লাস করলাম না চলে গেলাম বাসায়। খুব কষ্ট হচ্ছে আমার। রাতে তো মনে হচ্ছে সময় যাচ্ছেই না। কোন মতে সকাল হয়ে গেল তাড়াতারি স্কুলে ছুটে গেলাম। আজ ও নাই স্কুলে🥺🥺। আমি বসে আছি হুট করে আমার চোখ গেল এক দেয়ালের আড়ালে আমি দেখলাম দিপা আমাকে দেখতাছিল আমি ............বাকি অংশ পরের পর্বে হবে ইনশাল্লাহ।


FBE10811-76FA-4884-B3AE-5F884FA33AED.jpeg


IMG_20210902_121242.png

আমি সাইফুল ইসলাম রাজু ।

ডিপ্লমা টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার ।
ঢাকা মোহাম্মাদপুর থেকে কাজ করি ।
মুন্সিগঞ্জ এর ছেলে ।
বাংলাদেশের একটি ফেসবুক গ্রুপ উইমেন ই-কমার্সে কাজ করি।

A5tMjLhTTnj4UJ3Q17DFR9PmiB5HnomwsPZ1BrfGqKbjddgXFQSs49C4STfzSVsuC3FFbePnB7C4GwVRpxUB36KEVxnuiA7vu67jQLLSEq12SJV1etMVkHVQBGVm1AfT2S916muAvY3e7MD1QYJxHDFjsxQDqXN3pTeN2wYBz7e62LRaU5P1fzAajXC55fSNAVZp1Z3Jsjpc4.gif


Comments 16


ভালোই তো লিখলেন গল্প।
তবে এই গল্পটা বাস্তবে চিন্তা করতে গেলে কিন্তু বিশাল কিছু। যদিও বাস্তবে এসব খুব কম ই হয়।
গল্প পড়াতে আমি সবার আগে 😂
গল্পের পাগল বলা চলে আমাকে।

21.10.2021 12:00
0

হাহাহাহহৈ

21.10.2021 12:19
0

কিনতি =কিন্তু

21.10.2021 12:19
0

রিক্সা কে রিক্স লিখেছেন। একটু ঠিক করে নিয়েন।
আমারটা ঠিক করছি ভাই। 😜

21.10.2021 12:45
0

কখন কাকে যে সত্যি ভালো লেগে যায়, ভালবাসা হয়ে যায় তা বলা যায় না৷ আমার কাছে ভালবাসায় ধনী গরিব ফ্যাক্ট নয়, ভালবাসা তো মনের মিলন। বেশ লাগলো গল্পটা, আর আমার 'রাজ' নামটি খুবই পছন্দ হয়েছে।

১ম পর্বটি পড়ে মন্তব্য করছি, বাকি অংশ কি হবে তার অপেক্ষায় রইলাম কিন্তু ভাইয়া।

21.10.2021 12:29
0

ইনশাল্লাহ বাকি পর্ব খুব শিগ্রই দিয়ে দিবো❣️❣️❣️❣️

21.10.2021 12:34
0

বাহ! ভাই পূর্ণ দৈর্ঘ প্রেম কাহিনি পড়লাম খুবই আনন্দ পেলাম৷ জীবনে সুখি হন এই দোয়াই করি।

21.10.2021 12:41
0

ধন্যবাদ আপনাকে ❣️❣️❣️🥰🥰

21.10.2021 12:44
0

গল্পটি অনেক সুন্দর এবং তার সঙ্গে যে ছবিগুলো দিয়েছেন এই দুইটা মিলেই গল্পটি অনেক জমে গেছে।পরবর্তী পর্বের অপেক্ষায় রইলাম।

21.10.2021 12:54
0

ধন্যবাদ আপনাকে ❣️❣️

21.10.2021 13:50
0

জীবনে এমন পিক কবে তুলবো ভাই 😭। আমাদের মতো পবলিকদের কষ্ট হয় অনেক 🙂 । তবে গল্পটি পড়ে ভালো লাগলো অনেক ভাই। বেচেঁ থাকুক ভালোবাসা এভাবেই। সম্পর্কটা যেন অটুট থাকে আজীবন থাকে সেই দোয়া রইল ভাই। ভাবীকে আমার সালাম রইল।

21.10.2021 14:34
0

হাহাহাহহা তুলতে পারবেন ভাই সময় হলেই পারবেন

21.10.2021 19:51
0

ভাই আপনাদের রিলেশনের গল্পটা অনেক ভালো লাগছে। পরের পর্বের জন্য অপেক্ষায় রইলাম। মেয়েটি আপনাকে সত্যিই অনেক ভালোবাসে। আপনার জীবনের সুন্দর একটি গল্প আমাদের সঙ্গে শেয়ার করার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

21.10.2021 14:44
0

ধন্যবাদ ভাই।

21.10.2021 19:51
0

ভাইয়া, এই গল্পটি কিছুটা মুভি কিংবা নাটকের মতো লেগেছে আমার কাছে।খুবই ভালো লাগলো পড়ে।তবে ভাইয়া কিছু মনে করবেন না, আপনার লেখার মধ্যে অনেক বানান ভুল আছে এবং শব্দ মিসিং আছে।পোষ্ট করার পূর্বে একবার রিভাইজ দিয়ে নিলে আশা করি এই ভুলগুলি হবে না।আমি জানি আপনি খুবই পরিশ্রমী একজন মানুষ।পরের পর্বের অপেক্ষায় রইলাম ভাইয়া।ধন্যবাদ আপনাকে।

22.10.2021 15:16
0

ধন্যবাদ আপু।

24.10.2021 04:32
0