How to avoid Phishing or Hacking.||Cautionary on internets



20210527_140433.jpg

Image source

  • ভাবুন একটি পানি ছাড়া মাছ,
    ইন্টারনেট ছাড়া জীবন ভাবলে,

এমনই হবে আজ।😄

GIF source


আসসালামু-আলাইকুম
আমি @omeresa . আজকে আমি আমাদের ইন্টারনেট জীবনের কিছু বড় অসুবিধা ফিশিং এবং হ্যাকিং সম্পর্কে ধারণা দেবো।
আবার এই কথা ভাববেন না যে,এর থেকে বাঁচার উপায় মনে হয় বলবে না।

যদি একথা ভেবেই থাকেন তবে আপনি ঠিক!
কারণ আমি এখানে বলতেছি না, লিখে দিতেছি 😄 😄.

আর মজা নয়\(◉_◉)চলুন শুরু করা যাক,

আমাদের এই আধুনিক জীবনে ইন্টারনেট অতি গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। এখন তো ইন্টারনেট সম্পর্কে ধারনা প্রায় সকলেরই আমার থেকেও বেশি আছে। কিন্তু ইন্টারনেটে অসাধু কিছু চক্র মিলে মানুষের নানা তথ্য এবং অর্থ-সম্পদ সহ ব্যক্তিগত বিষয় হাতিয়ে নিচ্ছে ফিশিং এবং হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে। এ সম্পর্কে আমার মনে হয় সকলের বেশ একটা ধারনা নাও থাকতে পারে। তাই আমি আজকে এ সম্পর্কে অল্প কিছু জানাতে চেষ্টা করব এবং এর থেকে বাঁচার কিছু উপায় তুলে ধরবেন ।(ইনশাআল্লাহ)

  • Phishing or Hacking কি ?
  • Hacking হল আপনার বিনা অনুমতিতে আপনার ইন্টারনেটের মাধ্যমে থাকা তথ্য হাতিয়ে নেয়া।
  • Phishing হল একটি লিংকের মাধ্যমে আপনার নানা রকম সোশ্যাল মিডিয়ার আইডি পাসওয়ার্ড এবং অন্যান্য তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার মাধ্যম।

    • আজকে আমি ফিশিং এর মাধ্যমে হ্যাকিং সম্পর্কেই বলবো । তাই এর সম্পর্কে একটি উদাহরণ এইরকম:-
      মনে করেন আপনাকে একজন একটি link দিয়ে বলল, তুমি এখানে লগইন করে তোমার steemit একাউন্টটি ওপেন করো । তাহলে তোমাকে দশটি up votes দেয়া হবে। তখন আপনি লগইন করলেন। কিন্তু একটু পর দেখলেন আপনার আইডি-পাসওয়ার্ড তারা নিয়ে আপনার অ্যাকাউন্টটি হ্যাক করে ফেলেছে। আপনি আর আপনার একাউন্টে অ্যাক্সেস করতে পারতেছেন না।এটাই হলো মূলত ফিশিং
      বিভিন্ন লোভ দেখিয়ে, আপনার Facebook, Twitter, Instagram, YouTube channel etc এর পাসওয়ার্ড অনলাইনে নিয়ে নেওয়াই Phishing।
    • এর থেকে বাঁচার উপায় কি?
    • এই লিংকগুলো আপনি দেখি বুঝতে পারবেন। এটি কোন secure website এর লিংক কিনা। কারণ এইগুলোর ডোমেইন নেম এর শেষে .com ,.in ,.org etc না থেকে অন্যরকম সন্দেহভাজক ডোমেইন থাকে। এমন থাকলে এই লিঙ্ক গুলোতে আপনার আইডি পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করবেন না।
    • কোন লিংক সন্দেহভাজক মনে হলে এগুলো নিচে দেওয়া ওয়েবসাইটের মাধ্যমে চেক করে নিতে পারেন লিংক গুলো safe কিনা। যদি লিংক গুলো সেফ হয় তাহলে আপনি নিঃসন্দেহে হয় ব্যবহার করতে পারেন। বেঁচে যেতে পারেন ভয়ানক মেলওয়ার ভাইরাস, Phishing মতো Hacking থেকে।
    • First website link- https://www.psafe.com/dfndr-lab/
    • Second website link-https://www.urlvoid.com/
    • কিভাবে ব্যবহার করবেন এই ওয়েবসাইট ?
    প্রথমে website এ যান। প্রথমই লিংক পেস্ট করার বক্স পেয়ে যাবেন।
    সেখানে লিংকটি copy past করুন। তার পার এর পাশে থাকা বাটন কিল্ক করলে এর স্টেটাস এসে পরবে। যদি safe লেখা আসে তাহলে নিরভয়ে আপনি লিংকটি ব্যবহার করতে পে পারেন।দুটি website এর একই কাজ বব্যহারও একই ভাবে করতে পারবেন।

    Pict_05-27-03.27.35.jpg

    কিন্তু কথা হলো এই ইন্টারনেট বা যত website আছে আমাদের মতই মানুষ তৈরি করেছে,হতে পারে এর থেকেও intelegends human
    আরো শক্তি সম্পূর্ণ Phishing link তৈরি করে ফেলবে। তখন এই website গুলোও বোকা হয়ে যাবে। তখন সুধু আপনার নিজের বিবেক বুদ্ধি দিয়েই বাঁচতে হবে। তাই চোখ কান খুলা রেখে কাজ করলে নিজের মূল্যবান account, তথ্য বাঁচিয়ে রাখতে পারবো। (ইনশাআল্লাহ)

    আশা করি এই পোষ্ট থেকে একটু হলেও উপকৃত হয়েছেন

    ধন্যবাদ সকলকে◉

    আসসালামু-আলাইকুম

    PicsArt_04-24-05.24.23.png


Comments 2



Couple Art Photography Contest Week #6(17).png

Your post has been upvoted by @bangladesh.com

Support us by delegating STEEM POWER

20SP 50SP 100SP 250SP
For more updates, keep following @steemitblog

27.05.2021 15:33
0

Very useful.

27.05.2021 15:48
0